মাসিক বন্ধ হওয়ায় কারণ- মাসিক বন্ধে করণীয়- মাসিক বন্ধ হলে কি ঔষধ / টেবলেট খেতে হবে

মাসিক বন্ধ কারণ – করনীয় ঔষধ টেবলেট

মেয়েদের মাসিক বন্ধ হওয়ার এটা অনেক ক্ষেত্রে স্বাভাবিক আবার অনেক ক্ষেত্রে অনেক বড় একটা সমস্যা। মাসিক কে আবার ঋতুস্রাব বলা হয় ইংরেজিতে ম্যানস বলা হয়ে থাকে প্রতিমাসে 21 থেকে প্রায় ৩৫ দিনের মধ্যে যদি এই মাসিক হয় তাহলে সেটা স্বাভাবিক, আর যদি এর আগে বা পরে হয় তাহলে সেটা অস্বাভাবিক মানে অনিয়মিত এই অনিয়মিত মাসিক টা আগে পরে হতে পারে অনেক কারণে যেমন

১) বিষন্নতায় ভোগা মানসিক পরিবর্তনের কারণে

২) স্বাস্থ্য মোটা হওয়ার কারণে অথবা পুরুষের শরীর থেকে আসা বিভিন্ন রোগের কারণে বিভিন্ন কারণে হয়ে থাকে.

তো এটার সমাধান কি মাসিক অনিয়মিত মাসিক হলে করনীয় টা কি সেটা আমাদের জানতে হবে যদি পায় 30 দিনের মধ্যে মাসিক হয় তো ভালো না হয় আপনাকে বিভিন্ন ডাক্তারের কাছে বিভিন্ন ওষধ টেবলেট পাওয়া যায়।

ডাক্তারের কাছে বিভিন্ন মাসিক শুরু করার জন্য ওষুধ পাওয়া যায় যেমন নোরিক্স যা আপনাকে 2-3 দিনের ভিতরেই মাসিক হতে সাহায্য করবে।

এছাড়াও মাসিক পুরা মাস আপনি সুখী এবং কি ফেমিকন ইউজ করে সারা মাস কাজও করতে পারবেন বাচ্চা হবে না আমি সবচেয়ে ভালো মনে করি আপনারা ভালো একজন ডাক্তারের পরামর্শ নিতে পারেন না হলে মাসিক বন্ধ হলে বাচ্চা হওয়ার সম্ভাবনা থেকে যায়।

tag:

মাসিক বন্ধ না হলে করণীয়, মাসিক বন্ধ হলে কি ঔষধ খেতে হবে, মাসিক বন্ধ হলে চিকিৎসা, মাসিক না হলে কি বাচ্চা হয়, মাসিক না হলে কি ওষুধ খেতে হবে, অবিবাহিত মেয়েদের মাসিক বন্ধ হওয়ার কারণ, মাসিক হওয়ার ট্যাবলেট এর নাম অনিয়মিত মাসিক হলে কি বাচ্চা হয় না,
মাসিক বন্ধ হলে, মাসিক বন্ধ হলে করণীয়, মাসিক বন্ধ হলে কি ঔষধ খেতে হবে, মাসিক বন্ধ হলে কি করতে হয়,
এক মাসে দুইবার মাসিক হওয়ার কারণ,
মাসিক নিয়মিত করার ট্যাবলেট,
ঋতুস্রাব কিভাবে হয়,
ঋতুস্রাব কি,
মাসিক নিয়মিত করার দোয়া,
মাসিক বন্ধ,

(Visited 52 times, 2 visits today)

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*